হত্যার দায় স্বীকার করলেন শিমুর স্বামী

Tuesday, January 18th, 2022

বিনোদন ডেস্ক : চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুকে (৩৫) পারিবারিক কলহের জেরে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গণমাধ্যমকে এ কথা বলেন জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মারুফ হোসেন সরদার।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিমুকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন তার স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল।

এর আগে অভিনেত্রী রাইমা ইসলাম শিমুর মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তার স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল এবং তার বন্ধু ফরহাদকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। সোমবার দিবাগত রাতে র‌্যাব তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটক করে। পরে শিমুর স্বামী সাখাওয়াত জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, তাদের কাছ থেকে একটি গাড়ি উদ্ধার করা হয়েছে। গাড়িটিতে রক্তের দাগ আছে।

ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, এ ঘটনায় নিহত শিমুর স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল এবং তার বন্ধু ফরহাদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সোমবার রাতেই শিমুর ভাই শহীদুল ইসলাম খোকন বাদী হয়ে কলাবাগান থানায় ছয়জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন।

রাজধানীর গ্রিনরোডের বাসিন্দা ছিলেন অভিনেত্রী শিমু। রাইমা ইসলাম শিমু ২০২০ সালে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, ১৯৯৮ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত তিনি ১৮ থেকে ২২টি সিনেমায় অভিনয় করেন।

১৯৯৮ সালে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘বর্তমান’ সিনেমা দিয়ে রুপালি পর্দায় তার অভিষেক হয়। এরপর একে একে অভিনয় করেছেন ৫০টিরও বেশি সিনেমায়। কাজ করেছেন বহু নাটকে। অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজক হিসবেও সক্রিয় ছিলেন তিনি।

বাংলাদেশের অনেক গুণী পরিচালকের সাথে কাজ করেছেন শিমু। সে তালিকায় আছেন মরহুম চাষী নজরুল ইসলাম, পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, এ জে রানা, শরিফুদ্দিন খান দ্বীপু, এনায়েত করিম, শবনম পারভীন। অভিনয় করেছেন রিয়াজ, অমিত হাসান, বাপ্পারাজ, জাহিদ হাসান, মোশারফ করিম, শাকিব খানসহ অনেক গুণী ও জনপ্রিয় অভিনেতাদের বিপরীতে।