ফের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া

শনিবার, অক্টোবর ১, ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: উত্তর কোরিয়া ফের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান কর্তৃপক্ষ। শনিবার (১ অক্টোবর) জাপানের এনএইচকে ন্যাশনার টেলিভশনে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

জাপানিজ টেলিভিশনটি বলছে, উত্তর কোরিয়া স্বল্পমাত্রার কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে। তাদের বিশ্বাস এগুলো জাপান সাগরে পতিত হয়েছে। জাপানের কোস্টগার্ড এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়া থেকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে।

পিয়ংইয়ং অন্তত দুটি সম্ভাব্য ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে। সর্বোচ্চ ৫০ কিলোমিটার উচ্চতায় ওঠার পর একটি ক্ষেপণাস্ত্র ৪০০ কিলোমিটার ও অপরটি ৩৫০ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করে বলে জাপানের প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী তোশিরো ইনো জানিয়েছেন।

ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার ঘটনায় জাপান কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে প্রতিবাদ জানিয়েছে বলে ইনো জানান। ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা এড়ানোর জন্য ক্ষেপণাস্ত্র দুটি সম্ভবত ‘অনিয়মিত গতিপথ’ ধরে উড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

দক্ষিণ কোরিয়াও সামরিক বাহিনী উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। যদিও উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে এখনও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

কোরিয়া উপদ্বীপে ঘিরে উত্তেজনা চড়তে থাকার মধ্যেই এক সপ্তাহে চতুর্থবারের মতো ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল পিয়ংইয়ং।

এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শুক্রবার পাঁচ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের নৌবাহিনী সাবমেরিন-ধ্বংসী এক ত্রিপক্ষীয় মহড়ায় অংশ নেয়, এর একদিন পর শনিবার পরীক্ষামূলকভাবে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া।

এক বিবৃতিতে দক্ষিণ কোরিয়ার জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের উত্তরের সুনান থেকে দুটি স্বল্প পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। এগুলো ৬ মাইল গতিতে ৩০ কিলোমিটার উপর দিয়ে ৩৫০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে পড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ইন্দো-প্যাসিফিক কমান্ড বলেছে, তারা এই ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার বিষয়ে সতর্ক ছিল এবং এগুলো তাদের মিত্র দেশগুলো বা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক জন্য কোনো আশু হুমকি ছিল না বলে মূল্যায়ন থেকে ধারণা পেয়েছে তারা।

গত সপ্তাহে দক্ষিণ কোরিয়া সফর করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। হ্যারিসের সফরের আগে-পরেও পরীক্ষামূলকভাবে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে উত্তর কোরিয়া। চলতি বছর রেকর্ড গতিতে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাচ্ছে পিয়ংইয়ং।

দেশটি গণ্য করার মতো একটি পারমাণবিক শক্তি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্র দেশগুলোর জন্য ক্রমাগত হুমকি হয়ে উঠছে বলে ধারণা পশ্চিমা বিশ্লেষকদের।

পিয়ংইয়ং ২০১৭ সালে প্রথমবারের মতো আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছিল।

যুদ্ধে ব্যবহার করার মতো অস্ত্র তৈরির চেষ্টা হিসেবে উত্তর কোরিয়া পরীক্ষামূলক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া বৃদ্ধি করেছে বলে ধারণা বিশ্লেষকদের। পাশাপাশি ইউক্রেইনের যুদ্ধের কারণে বিশ্বজুড়ে চলা বিভ্রান্তি ও অন্যান্য সংকটের সুযোগে তারা তাদের পরীক্ষাগুলো ‘স্বাভাবিক করে তোলার’ চেষ্টা করছে বলে মনে করছেন তারা।