লিঙ্গ পরিবর্তন করে ছাত্রীকে বিয়ে করলেন শিক্ষিকা

বুধবার, নভেম্বর ৯, ২০২২

আন্তর্জাতিক: ভারতের রাজস্থান ভারতপুরের এক স্কুল শিক্ষিকা লিঙ্গ পরিবর্তন করে ছাত্রীকে বিয়ে করেছেন। শারীরিক শিক্ষার শিক্ষিকা মীরা এখন লিঙ্গ পাল্টে হয়েছেন আরভ কুন্তাল।

রবিবার তিনি বিয়ে করেছেন কল্পনা ফৌজদার নামের ছাত্রীকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, কল্পনার প্রেমে পড়েন মীরা। তাকে বিয়ে করার জন্য মীরা নিজের লিঙ্গ পাল্টে ফেলেছেন।

শারীরিক শিক্ষা ক্লাসে কল্পনার সঙ্গে পরিচয় হয় মীরার। রাজ্য পর্যায়ে কাবাডি খেলেন কল্পনা। জানুয়ারিতে তিনি দুবাইয়ে একটি আন্তর্জাতিক কাবাডিতে অংশগ্রহণ করতে পারেন।

লিঙ্গ পাল্টে পুরুষ হওয়া আরভ কুন্তাল সাংবাদিকদের বলেন, ভালোবাসায় সবকিছু করা যায়। তাই আমি লিঙ্গ পাল্টেছি।

আরভ বলেছেন, স্কুলের মাঠে কল্পনার সঙ্গে মিথষ্ক্রিয়ার সময় তার প্রেমে পড়েন। তিনি সবসময় একজন ছেলে হতে চাইতেন।

তার কথায়, আমি মেয়ে হিসেবে জন্ম নিয়েছি কিন্তু সবসময় ছেলে হওয়ার কথা ভাবতাম। লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য অস্ত্রোপচারের কথা সবসময় মাথায় ঘুরত। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে আমার প্রথম অস্ত্রোপচার করি।

কল্পনা বলেছেন, দীর্ঘদিন ধরে আরভের প্রেমে পড়েছেন। আরভ অস্ত্রোপচার না করলেও তিনি তাকে বিয়ে করতেন। তিনি বলেন, ‘শুরু থেকেই আমি তাকে ভালোবাসি। অস্ত্রোপচার না করলেও আমি তাকে বিয়ে করতাম।’

আরাভ লিঙ্গ পরিবর্তন করলেও তাঁদের বিয়ে নিয়ে তেমন কোনো বাধা আসেনি। উভয়ের পরিবারই এই বিয়ে মেনে নিয়েছে। তবে ভারতে এমন বিয়ের ঘটনা দুর্লভ ।