এবার ফোল্ডিং ফোন আনছে গুগল

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৭, ২০২২

স্যামসাংয়ের দখলে ফোল্ডিং বা ভাঁজ করা ফোনের বাজার। প্রতিষ্ঠানটি ফ্ল্যাগশিপ ফোল্ডিং ফোন এনে রীতিমত সাড়া ফেলেছে। এবার দক্ষিণ কোরিয়ার এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিদ্বন্দ্বী হতে চলেছে সার্চ ইঞ্জিন গুগল। টেক জায়ান্ট শিগগিরই পিক্সেল সিরিজে ফোল্ডিং ফোন আনছে।

সম্প্রতি প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ২০২৩ সালের মে মাসে লঞ্চ হতে পারে গুগল পিক্সেল ফোল্ড। গুগলের প্রথম ফোল্ডিং অ্যানড্রয়েড ফোনের ভেতরে একটি বড় স্ক্রিন থাকবে। যা ভাঁজ হয়ে যাবে। এই স্ক্রিনের উপরে তুলনামূলক চওড়া বেজেল থাকতে পারে। এছাড়াও ফোনের বাইরে থাকবে একটি পৃথক ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লেতে হোল পাঞ্চ ডিজাইন থাকতে পারে।

সম্প্রতি ফ্রন্ট পেজ টেক নামে জনপ্রিয় ইউটিউবার পিক্সেল ফোল্ড লঞ্চের খবর ফাঁস করেছেন। তিনি জানিয়েছেন সংস্থার মধ্যে কর্মীরা এই খবর গোপন রাখতে ‘প্রোজেক্ট পাসপোর্ট’ কোড ব্যবহার করছেন। এই ফোনে মেটাল ও গ্লাস বডি ব্যবহার হতে পারে। ফলে এই ফোল্ডিং ফোনের ওজন তুলনামূলক বেশি হতে পারে বলে রিপোর্টে জানানো হয়েছে।

যদিও গুগল পিক্সেল ফোল্ডের স্পেসিফিকেশন নিয়ে ধোঁয়াশা থেকেই যাচ্ছে। সাদা ও কালো রঙে বাজারে আসতে পারে গুগলের প্রথম ফোল্ডেবল স্মার্টফোন।

গুগল পিক্সেল ফোল্ডের দাম শুরু হতে পারে ১৭৯৯ মার্কিন ডলার। একাধিক স্টোরেজ ও মেমোরি ভেরিয়েন্টে এই ফোন লঞ্চ করতে পারে মার্কিন টেক জায়েন্ট সংস্থাটি।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে ২০২৩ সালের মে মাসে বাজারে আসবে এই ফোল্ডিং অ্যানড্রয়েড মোবাইল।

গুগল ফোল্ডিং ফোনের ডিজাইন ও ফিচার

সম্ভাব্য ডিজাইনের একটি রেন্ডার প্রকাশিত হয়েছে এক প্রতিবেদনে। ছবিতে ফোল্ডিং ডিজাইনের এই ফোন দেখা গেছে। ফোনের ভিতরে ও বাইরে পৃথক ডিসপ্লে থাকবে। ফোনের ভিতরে মেইন ডিসপ্লে ভাঁজ হবে। এই ডিসপ্লের উপরে চওড়া বেজেল দেখা গিয়েছে। অন্যদিকে বাইরের সেকেন্ডারি স্ক্রিনে রয়েছে হোল পাঞ্চ ডিজাইন। হোল পাঞ্চের নিচে থাকতে পারে ৯.৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

পিক্সেল সিরিজের সব ফোনই দুর্দান্ত ফটোগ্রাফির জন্য জনপ্রিয়। গুগল পিক্সেল ফোল্ড ফোনের পেছনে তিনটি ক্যামেরা থাকতে পারে। ফোনের উপরে ও নিচে থাকতে পারে স্টিরিও স্পিকার সেটআপ।

থাকবে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। প্রথম ফোল্ডিং ফোনের পাওয়ার বাটনের নিচে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দিতে পারে গুগল।