বাড়াবাড়ি করলে হাত গুড়িয়ে দিতে হবে: নানক

Friday, December 9th, 2022

ঢাকা: আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ২০০১ সালে নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের ওপর বিএনপি যে হামলা চালিয়ে ছিলো সেই সময় নেত্রীর নির্দেশ মেনে আমরা তাদের কিছু করিনি, তাদের পেন্ডিং মাইর রয়েছে গেছে। এখন যারা সরকার উৎখাতের চেষ্টা করছে তাদের সেই পেন্ডিং মাইর ফেরত দিবো। বেশি বাড়াবাড়ি করলে ওদের হাত গুড়িয়ে দিতে হবে।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) মহানগর নাট্যমঞ্চে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আয়োজিত সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

নানক বলেন, ‘চোরা না শুনে ধর্মের কাহিনী, গত নভেম্বর থেকে ডিসেম্বরের ৩০ পর্যন্ত ঐতিহাসিক সোহরাওয়াদী উদ্যান আওয়ামী লীগ গ্রহণ করেছিল। এই সময়ে আওয়ামী লীগে সব সমাবেশ এই উদ্যানে করা হয়েছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০ ডিসেম্বর বিএনপি সমাবেশের কারণে ওই মাঠ বিএনপিকে ছেড়ে দিতে ছাত্রলীগের কাউন্সিল ৮ তারিখ থেকে ৬ তারিখে এনেছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সেখানে আমাদের কোনো অবকাঠামো তৈরি করা হয়নি।

কিন্তু ওদের আব্বাজানরা মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনীর এখানে আত্মসমর্পণ করেছি। ওদের গাত্রদাহ রয়েছে। যেকারণে ওরা সেখানে যাবেনা। এতো অনুনয়-বিনয় করলেন, কিন্তু চোরারা শুনলো না। অবশেষ গোলাপবাগ মাঠে যাবেন।’

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, আপনাদের মনে রাখতে হবে এই অপশক্তিকে যারা সমর্থন দিয়েছে, আ স ম রব, মান্না, নূর তারা ১ দলের এক নেতা। ২০০১ সালের পর ওরা আমাদের মেরেছে কিন্তু আমরা সেই সময় তাদের কিছু করিনি, তাদের সেই পেন্ডিং মাইর রয়েগেছে। বেশি বাড়াবাড়ি করলে ওদের হাত গুড়িয়ে দিতে হবে। ফজরের নামাজ পড়ে রাত পর্যন্ত পাহারা দিতে হবে। কেউ যেন উচ্চবাচ্চ করলে ছাড় দেওয়া হবে না।