মির্জা ফখরুলকে আটকের বিষয়ে যা বললেন তার স্ত্রী

Friday, December 9th, 2022

ঢাকা: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) আটক করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে উত্তরার বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার। শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) ভোর ৬টার দিকে আটকের বিষয়ে বিস্তারিত কথা বলেছেন মির্জা ফখরুলের স্ত্রী রাহাত আরা বেগম।

রাজধানীর উত্তরার বাসভবনে সাংবাদিকদের রাহাত আরা বেগম বলেন, ‘চারজন বাসায় এসেছিল।
কয়েকজন নিচে ছিল। তাদের বসানো হয়েছিল। তারা বলল, তাকে (ফখরুল) নিয়ে যাবে। সিকিউরিটি গার্ডকে নিয়ে নাকি চড় থাপ্পড়ও মারা হয়েছে, আমি পরে শুনলাম। ওরা মনে হয় দরজা খুলছিল না। ’

‘আমাদের এমন অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে। এর আগেও তারা (পুলিশ) এসেছিল। হয়তো তখন স্যার (ফখরুল) বাসায় ছিলেন না। কিন্তু তারা আমার বা আমাদের কারো সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে নাই। কিন্তু নিচে যখন দাঁড়িয়ে ছিল তখন ওদের (সিকিউরিটি গার্ড) সঙ্গে একটু রাফ (খারাপ) ব্যবহার করেছে। ’

কেন নিয়ে যাচ্ছে সংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তখন ওরা বলছে, দুইটা মামলা নাকি হয়েছে যেখানে তিনি আসামি। আপনারা কেন আসছেন আমি তাদের জিজ্ঞাসা করি, তখন তারা বলে উপরের নির্দেশে। কার নির্দেশে নিয়ে যাচ্ছেন সেটা তো তারা বলে নাই। ’

মির্জা ফখরুলের শারীরিক অবস্থার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তার শরীরের অবস্থা বেশি ভালো না। কাল রাতেও তো তাদের মিটিং ছিল। বেশ রাত করে বাসায় ফিরেছিলেন। শরীর বেশ খারাপ ছিল। এসেই তিনি ঘুমিয়ে পরেছিলেন। যে কাপড়চোপড় পরেছিলেন সেগুলো নিয়েই শুয়ে পড়েন। ’

কয়টার দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এমন প্রশ্নে রাহাত আরা বেগম বলেন, ‘ওরা আসছে রাত ৩টায়। সাড়ে ৩টার মধ্যে বের হয়ে গেছে। ৪-৫ গাড়ি নিয়ে রাত ১০টা থেকেই ওরা নাকি এখানে টহল দিচ্ছে। আগে থেকেই হয়তো তাদের গ্রেপ্তার করার পরিকল্পনা ছিল। রাত ৩টার দিকে দরজা খুলতে বলে। তবে সিকিউরিটি দরজা খুলতে চাচ্ছিল না। ওই সময় রাস্তার আলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। ’

মির্জা ফখরুলের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ হয়েছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নিয়ে যাওয়ার পর থেকে তার সঙ্গে আমার কোনো যোগাযোগ হয় নাই। তবে পরে তারা (ডিবি পুলিশ) এসে ওষুধ নিয়ে গেছে। আইজিপির সঙ্গেও যোগাযোগ করা হয়নি। ’

কাল তো একটা বড় মিটিং তিনি কি কোনো ম্যাসেজ দিয়েছেন এমন প্রশ্নের জবাবে রাহাত আরা বেগম বলেন, ‘আমি তো এসব জানি না। হয়তো দলের লোকদের সঙ্গে করেছে। আমি এসব বলতে পারবো না। ’